নতুন রিকশা পাচ্ছে ফজলুর, তবে ভাইরাল না হওয়া অন্যরা?

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৭ অক্টোবর ২০২০, বুধবার
প্রকাশিত: ০১:১৬ আপডেট: ০১:২২

নতুন রিকশা পাচ্ছে ফজলুর, তবে ভাইরাল না হওয়া অন্যরা?
রিকশাটি তুলে নেয়ার সময় ফজলুরের কান্না, নতুন রিকশা পাওয়ার আশ্বাসে ফজলুরের হাসি

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর জিগাতলা এলাকা থেকে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা ফজলুরের রিকশা ট্রাকে তুলে নিয়ে গেছেন। এমনই সময়ে তার বুক ফাটা কান্নার একটি ভিডিও ও কয়েকটি ছবি ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়। তার কথাগুলো মনোযোগ দিয়ে শুনলে বুকের ভেতরটা মোচড় দিয়ে ওঠে। মনে হয় পাঁজরের হাড়গুলো যেন ভেঙে চুরমার হয়ে যাচ্ছে। আকাশ-বাতাস কাঁপানো সেই আর্তনাদ।

ফজলুর কান্না জড়িতকণ্ঠে বলে ‘গাড়ি তো লইয়া গেল। ৮০ আজার ট্যাহার কিস্তি কি কইরা দিমু? কি কইরা খামু...?’ এখন কি করবেন? ‘কি করমু, গলায় দড়ি দিমু।’

করেনায় লাখো মানুষ কাজ হারিয়েছেন। মু.ফজলুর রহমানও তাদের একজন। বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তান ও দুটি ভাগ্নির একমাত্র আয়ের উৎস ফজলুর।  কাজ নেই, আয় নেই। তারা থাকবেন কোথায়, খাবেন কী? বেঁচে থাকবেন, টিকে থাকবেন কী করে? ৮০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে ফজলুর রহমান একটি রিকশা কিনেছেন। 

গতকাল মঙ্গলবার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কর্তারা তার রিকশাটি তুলে নিয়ে গেছে। রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা নিষিদ্ধ। ব্যাটারিচালিত রিকশার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে, ঘোষণা সিটি করপোরেশন আগেই দিয়েছিল। কিন্তু ফজলুর রহমান সেই ঘোষণা জানতেন না।

এদিকে ওই যুবকের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন গুলশান গুদারাঘাট এলাকার বাসিন্দা ব্যারিষ্টার আহসান ভুলিয়ান। গতকাল রাতেই তিনি ছুটে যান ওই রিকশা চালক ফজলুরের বাড়িতে। তার জন্য নতুন একটি রিকশা কেনার টাকা জমা দেন। আগামী পরশু রিকশাটি পাওয়া যাবে বলে জানান ভুলিয়ান তার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

                                                                   ফাইল ছবি
তবে অনেকের প্রশ্ন ফজলুর রহমানকে নতুন রিকশা কিনে দেওয়া হবে। হাসি ফুটবে ফজলুরের মুখে। এই রিকশাটিও ফজলুর রহমান কতদিন চালাতে পারবেন, তা অনিশ্চিত। এক ফজলুর ভাইরাল হওয়ায় হয়ত নতুন একটি রিকশা পেল কিন্তু এমনও হাজারো চালক রয়েছে যাদের রিকশা তুলে নিয়ে গেছেন সিটি করপোরেশন কিন্তু তাদের বুক ফাটা কান্না ভাইরাল না হওয়াতে নিমিশেই শেষ হয়ে গেছে। ভাইরাল না হওয়া তাদের কি হবে? 

ব্রেকিংনিউজ/এসপি

bnbd-ads