ধর্ষিতা মেয়েকে বুকে জড়িয়ে থানার বারান্দায় মা!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
১০ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ১১:০৪

ধর্ষিতা মেয়েকে বুকে জড়িয়ে থানার বারান্দায় মা!

পবিত্র শবে বরাত রাত। করোনা ভাইরাসে আতঙ্কে সারাদেশে পিনপতন নিরবতা। সবাই যার যার বাসা বাড়িতে ধর্মীয় কাজগুলো পালন করছেন। এমই মুহূর্তে নয় বছরের ধর্ষিতা মেয়েকে বুকে জড়িয়ে নিকটস্থ থানার বারান্দায় মা!  আকাশের দিকে তাকিয়ে চিৎকার করে কাঁদছেন। তিনি হয়তো ভাবছেন, এর বিচার আছে আকাশের মালিকের কাছে! তার এই বুকফাটা আর্তনাদ আকাশ ভেদ করে আরশের মালিককের নিকট পৌঁছাবে না এর কি কোন গ্যারেন্টি আছে?

বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) মধ্যরাত থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে মায়ের কোলে ধর্ষিত রক্তমাখা শিশু মেয়ের ছবি। এমন দৃশ্য দেখে দেশের হাজারো মানুষের হৃদয় কেঁপে উঠেছে। এ হিংস্রতা দেখে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে মহামারীর মধ্যেও মানুষের বিবেক কি পরিবর্তন হবে না।

ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের সোনারামপুরে। ৯ বছরের শিশুকে উঠিয়ে নিয়ে ধর্ষণ করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখেছে স্থানীয় লম্পট যুবক লিটন মিয়া। রক্তাক্ত সেই শিশুকে নিয়ে তাঁর মা আহাজারী করছেন আশুগঞ্জ থানার সামনে।

সন্ধ্যায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে রক্তাক্ত অবস্থায় আশুগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে তার মা। শিশুটির গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে। তার পরিবার আশুগঞ্জে একটি চাতালকলে শ্রমিক হওয়ায় সেখানেই বসবাস করেন।

এই ঘটনায় অভিযুক্ত লিটন মিয়া (২৫) নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে। সে কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্ট্রগ্রাম উপজেলার ইমান মিয়ার ছেলে ও আশুগঞ্জে একটি চাতাল কলে কাজ করেন।

শিশুটির পরিবার সূত্রে জানা যায়, বিকেলে শিশুটি চাতাল কলের ভেতরে খেলা করছিল। এর কিছুক্ষণ পর সন্ধ্যার দিকে শিশুটির বড় ভাইয়ের বন্ধু আরেক চাতাল কলের শ্রমিক লিটন সেখানে আসে। এ সময় শিশুটিকে ফুসলিয়ে পাশের ধান ক্ষেতে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায় লিটন।
 
সন্ধ্যার পর ওই শিশুর এক সহপাঠী পরিবারকে এসে জানায় শিশুটি রক্তাক্ত অবস্থায় ধান ক্ষেতে পড়ে আছে। এ খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা গিয়ে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর পুলিশ লিটনকে আটক করে।

আশুগঞ্জ-সরাইল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মাসুদ রানা জানান, অভিযুক্ত যুবককে শিশুটি শনাক্ত করার পর আটক করা হয়েছে। শিশুটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ব্রেকিংনিউজ/এসপি

bnbd-ads