আবরার হত্যার আসামিদের ক্ষমা করে দেয়ার অনুরোধ!

স্যোসাল মিডিয়া ডেস্ক
৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৬:০৬ আপডেট: ০৭:৩৯

আবরার হত্যার আসামিদের ক্ষমা করে দেয়ার অনুরোধ!

ভারতবিরোধিতা করে স্ট্যাটাস দেয়ায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের মাফ করে দেয়ার অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সম্প্রতি তার ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট দেন। তার স্ট্যাটাসটি ব্রেকিংনিউজের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-

কয়েকটা ব্যাপারে কিছু বলা উচিত:
১.আসামি সকালের বাবা মারা গেছেন,, তাকে যেহেতু আমরা চিনি না তাই তাকে নিয়ে আমরা কিছু বলিনি,,, হয়তো কোনো বাবা-ই চান না তার সন্তান খুন বা খুনি হোক,,,
২. ৩-৪দিন আগে অপরিচিত একটা নম্বর থেকে প্রথম কল আসে,,নাম বলছি না বাড়ি জয়পুরহাট,,, আজকে আর গতকালকে আব্বুকে তার বলা কথা গুলা বলতেছি: "আপনার ছেলে তো চলে গেছে, আর তো ফিরে আসবে না কিন্তু এতগুলা ছেলের জীবন ও তো নষ্ট হয়ে যাবে,,, আল্লাহ বলেছেন,, হত্যার বদলে হত্যা কিন্তু মাফ করে দেয়া সর্বোত্তম,,, আসামিদের মধ্যে অনেকের বাড়ির লোকই অসুস্থ,, সকালের বাবা মারা গেছেন,, আমরা কয়েকজন আসামিদের পক্ষ থেকে দেখা করতে চাই আপনাদের সাথে।" এরপর ভুলেও আর কল যেন না দেয় বলে কল কেটে দেয়া হয়।
লজ্জাহীনতা আর দুঃসাহস, দুইটার ই limit থাকা উচিত ছিল।
Are we a Joke!

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরের প্রথম দিকে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয় তার সমালোচনা করে ফেসুবকে স্ট্যাটাস দেন বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ।

ওই স্ট্যাটাসের জন্য গত বছরের ৬ অক্টোবর রাতে ফোন করে তাকে শেরেবাংলা আবাসিক হল কক্ষে ডেকে নেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে তাকে সেখানেই পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। দুই দফা পিটিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত হলে আবরারের লাশ সিঁড়ির নিচে রাখে।

এ ঘটনায় গত ৭ অক্টোবর রাজধানীর চকবাজার থানায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। তীব্র আন্দোলনের মুখে এ মামলার অধিকাংশ আসামি গ্রেফতার হয়ে বর্তমানে কারাগারে আছে। তদন্তে নেমে পুলিশ এজাহারের ১৬ জনসহ মোট ২১ জনকে গ্রেফতার করে। যাদের সবাই বুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ 

bnbd-ads