নিজেকে ‘নির্দোষ দাবি’ পাঠাওয়ের ফাহিম হত্যায় অভিযুক্তের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৫ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ১০:৫৫

নিজেকে ‘নির্দোষ দাবি’ পাঠাওয়ের ফাহিম হত্যায় অভিযুক্তের

জনপ্রিয় রাইড শেয়ারিং অ্যাপস পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার টাইরেস ডেঁভো হ্যাসপিল আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন। তার বিরুদ্ধে আনা প্রথম ডিগ্রি হত্যা মামলার বিষয়ে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন তিনি।

নিউইয়র্কের একটি আদালতে স্থানীয় সময় ১৩ অক্টোবর স্কাইপের মাধ্যমে বিচারকের কাছে প্রথম ডিগ্রি হত্যা মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন হ্যাসপিল। পরে আগামী ১১ জানুয়ারি আবারও এই মামলার শুনানি দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ম্যানহাটন ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নির অফিস জানিয়েছে, ফাহিম সালেহ হত্যার ঘটনায় শুরুতে ২১ বছর বয়সী হ্যাসপিলের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ডিগ্রি হত্যা মামলার অভিযোগ আনা হয়। পরে বিচারক তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রথম ও দ্বিতীয় হত্যা মামলায় উন্নীত করেন। এছাড়া হ্যাসপিলের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ডিগ্রি চুরি, দ্বিতীয় ডিগ্রিতে খুনের আলামত নষ্ট ও গোপনের অভিযোগ রয়েছে।

হ্যাসপিলের ফুফু মারজোরি সাইন জানান, শিশুকাল থেকেই অত্যন্ত চুপচাপ প্রকৃতির। সে একটা সময় বেশ বিরক্তিকর হয়ে উঠেছিল হ্যাসপিল। পরে তাকে পালক বাবা-মায়ের হাতে তুলে দেয়া হয়। সে সবসময় নিরুদ্বিগ্ন থাকত। মন যা চাইত তা-ই করত। হ্যাসপিলের উদ্বেগহীন থাকার স্বভাব অবশ্য এখনও যায়নি।

তিনি আরও জানান, ফাহিম সালেহ হত্যাকাণ্ড ও গ্রেফতার হওয়ার মাঝের সময়টাতেও বেশ নিরুদ্বিগ্নভাবে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে এ অভিযুক্তকে। একাধিক ভিডিও ফুটেজে তাকে ফাহিমের বাসা থেকে মাত্র মাইলখানেক দূরে ম্যানহাটানের নোহো এলাকায় খোশমেজাজে ঘুরতে দেখা গেছে।

এমনকি, ফাহিমের কাছ থেকে চুরি করা একটি ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে একগুচ্ছ জন্মদিনের বেলুনও কিনেছিলেন তিনি। পুলিশ তার কাছ থেকে ওই ক্রেডিট কার্ডটি উদ্ধার করেছে।

হ্যাসপিলের বিষয়ে নিউইয়র্ক পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এই লোকটি হচ্ছে আমেরিকার নতুন সাইকো, তবে হাবাগোবা।’

গত ১৪ জুলাই স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ম্যানহাটানের ইস্ট হাউস্টন স্ট্রিট ও সাফোক স্ট্রিট–সংলগ্ন অভিজাত অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ফাহিম সালেহর (৩৩) লাশটি টুকরা অবস্থায় উদ্ধার করে নিউইয়র্ক পুলিশ।

ব্রেকিংনিউজ/এম

bnbd-ads