সৌদিতে জীবন-মৃত্যুর মুখোমুখি ২২ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক

প্রবাস ডেস্ক
৫ জুন ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ০৫:৫৭ আপডেট: ০৮:৪২

সৌদিতে জীবন-মৃত্যুর মুখোমুখি ২২ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক

বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনা ভাইরাসে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ঝুঁকিতে দিন কাটাচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এর মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে করোনা আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিকের মৃত্যু বেড়েই চলেছে। অনেক শ্রমিকের কাজের সুযোগও বন্ধ হয়ে গেছে। বর্তমানে দেশটিতে অন্তত ২২ লাখ বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিক অনিশ্চিত ও ঝুঁকিপূর্ণ জীবন কাটাচ্ছেন। 

শুক্রবার সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া এক তথ্যে জানা গেছে, দেশটিতে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৯৩ হাজার ১৫৭ জনে দাঁড়িয়েছে। মারা গেছেন ৬১১ জন। এর মধ্যে ২২৪ জনই প্রবাসী বাংলাদেশি। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৮ হাজার ৯৬৫ জন। 

সৌদিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা মনে করছে, সেখানে যে হারে বাংলাদেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুবরণ করছে তা খুবই আশঙ্কাজনক। তবে সৌদি আরবের রিয়াদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস মনে করছে, অন্য দেশের অভিবাসীদের তুলনায় সেখানে বাংলাদেশিদের আক্রান্ত হওয়ার হার কিছুটা বেশি হলেও তা অস্বাভাবিক কিংবা আশঙ্কাজনক নয়।

সৌদিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ বলেন, ‘সৌদিতে এখন পর্যন্ত ১০ হাজার ৯০৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। দেশটিতে প্রায় ২২ লাখ বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় কর্মরত রয়েছেন। সেই অনুপাতে আক্রান্তের হার নিয়ে খুব বেশি উদ্বেগের কিছু নেই।’

সৌদিতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে সচেতনতার অভাব অথবা স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রবণতার কারণে সৌদিতে বাংলাদেশিদের সংক্রমণের হার বাড়ছে। সেখানে থাকা বাংলাদেশিদের অধিকাংশই কম দক্ষতাসম্পন্ন শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। তাদের অধিকাংশই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে থাকেন। তাদেরকে বদ্ধ জায়গায় গাদাগাদি করে থাকতে হয়। এক্ষেত্রে শারীরিক-সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাও কঠিন।’

প্রবাসী বাংলাদেশিরা বলছেন, অনেকেই উপসর্গ নিয়েও করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করাতে পারছেন না। অনেকেই ব্যক্তিগত গাড়ি না থাকায় শ্বাসকষ্ট নিয়েও হাসপাতালে যেতে পারছেন না। পর্যাপ্ত চিকিৎসাসেবা না পাওয়া প্রবাসীদের ব্যাপক হারে আক্রান্ত হওয়ার বড় কারণ।’

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads