‘টিকা দিয়ে প্রকৃত বন্ধুর পরিচয় দিলো ভারত’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
২৬ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ১০:৪৫

‘টিকা দিয়ে প্রকৃত বন্ধুর পরিচয় দিলো ভারত’

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন দিয়ে ভারত বাংলাদেশের প্রকৃত বন্ধুর পরিচয় দিয়েছে বলে জানিয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক।

তিনি বলেন, করোনা থেকে মুক্তি ও বাংলাদেশ ভারতে মৈত্রী অটুট হোক। সেই লক্ষ্যে ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশকে ২০ লাখ ডোজ টিকা অনুদান হিসাবে দিয়েছে। আমরা ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অভিনন্দন শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ কনফারেন্স রুমে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

অধ্যাপক নিম চন্দ্র ভৌমিক বলেন, ভারত আমাদের পরীক্ষিত বন্ধু। মুক্তিযুদ্ধের সময় তৎকালীন ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দ্রিরা গান্ধী ও ভারতের জনগণ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিল। 

তিনি বলেন, ভারত ১ কোটি শরনার্থীদের আশ্রয় দিয়েছেন, খাবার দিয়েছেন এবং তিন লক্ষ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন, অস্ত্র দিয়েছেন এবং ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন এবং মিত্র বাহিনী বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে যৌথভাবে যুদ্ধ করেছেন। 

আলোচনা সভায় লায়ন গনি মিয়া বাবুল বলেন, ভারত একটি মানবিক দেশ। সেই কারণেই ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে আমাদের পাশে দাড়িয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের সমর্থন দিয়েছেন এবং বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে যৌথভাবে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে দিয়েছেন। সেই কারণে আমরা ভারত সরকার ও জনগণের কাছে ঋণী। এবারও অতীতে যেভাবে ভারত বাংলাদেশের পাশে ছিল একই ভাবে এই করোনা ভাইরাস মুক্তের জন্য বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা বাংলাদেশের জনগণ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও জনগণের কাছে কৃতজ্ঞ। 

সভাপতির ভাষণে এম এ জলিল বলেন, মহান গণতান্ত্রিক ভারত, বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়ে প্রতিবেশি নয়টি দেশকে টিকা উপহার দিয়েছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই কারণে আমরা ভারত সরকার ও জনগণের কাছে কৃতজ্ঞ। অতীতের মত আমাদের বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অটুট থাকুক এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।    

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা কবি নাহিদ রোকসানা, ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান এম.এ ভাসানী, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদ কাজী ফারুক,, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য লোকমান হোসেন চৌধুরী প্রমুখ। 

ব্রেকিংনিউজ/আরএইচ/এমএইচ

bnbd-ads