পম্পেওর বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানালো ঢাকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৩ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার
প্রকাশিত: ১১:৩৮ আপডেট: ০৮:৫১

পম্পেওর বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানালো ঢাকা

বাংলাদেশে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল কায়েদার অস্তিত্ব নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর মন্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, পম্পেও বলেছেন, বাংলাদেশ এমন একটি জায়গা যেখানে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল-কায়দা হামলা চালিয়েছিল, ভবিষ্যতে এমন হামলার আশঙ্কা রয়েছে। একজন সিনিয়র নেতার এমন দায়িত্বহীন মন্তব্য দুঃখজনক ও অগ্রহণযোগ্য।

পম্পেওর এ ধরনের ভিত্তিহীন মন্তব্য ও মিথ্যাচারকে বাংলাদেশ তীব্রভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে। বাংলাদেশে আল-কায়দার উপস্থিতির কোনো প্রমাণ নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে বাংলাদেশ সব প্রকার সন্ত্রাসবাদ এবং সহিংস চরমপন্থার বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি বজায় রেখেছে। সন্ত্রাস মোকাবিলায় সব পদক্ষেপও গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশ বিশ্বব্যাপী প্রশংসা কুড়িয়েছে।

বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়, সন্ত্রাস মোকাবিলায় আমাদের ট্রাক রেকর্ড বিশ্বজুড়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে। সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় আমাদের প্রতিশ্রুতি অনুসারে আমরা ১৪টি আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ বিরোধী সম্মেলনের একটি পক্ষ হয়েছি। সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক ‘প্রতিরোধমূলক’ উদ্যোগের সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত রয়েছি। 

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও মঙ্গলবার রাতে ওয়াশিংটন ডিসির ন্যাশনাল প্রেসক্লাবে বক্তব্য রাখার সময় বলেন, আল-কায়েদার সেল বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছিল। সুনির্দিষ্টভাবে কোনো হামলা তা তিনি উল্লেখ করেননি। তবে ২০১৬ সালে ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে সন্ত্রাসী হামলার সঙ্গে ইরাক ও সিরিয়াভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) যোগসূত্র আছে বলে তৎকালীন যুক্তরাষ্ট্র সরকার দাবি করেছে। যা বাংলাদেশ বরাবরই তা প্রত্যাখান করে আসছে। 

ব্রেকিংনিউজ/নিহে

bnbd-ads