‘দেশকে পিছিয়ে দিতে চায় একটি প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১ ডিসেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার
প্রকাশিত: ০২:৫৮ আপডেট: ০৫:১৩

‘দেশকে পিছিয়ে দিতে চায় একটি প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি’

‘দেশকে পিছিয়ে দিতে চায় একটি প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি’- বলে দাবি করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জনগণের সম্মিলিত শক্তি সব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে নতুন মুক্তি এনে দেবে বলে তারা আশাবাদ ব্যাক্ত করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাঙালির স্বাধীন অসাম্প্রদায়িক জাতিসত্তার অবাধ বিকাশের পথে সবচেয়ে বড় বাধা সাম্প্রদায়িকতা। কিন্তু সাম্প্রদায়িক রাজনীতির চর্চা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের অভ্যুদয়কে ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি। বাংলাদেশের স্বাধীনতার শত্রুরা এখন সচেষ্ট। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের পরিচয় মুছে ফেলার চেষ্টা এখনো চলছে।

এতে আরও বলা হয়, দেশকে পিছিয়ে দিতে চায় একটি প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি। কিন্তু কোনো ষড়যন্ত্রই সফল হয়নি। দেশের মানুষ বাংলার চিরায়ত বৈশিষ্ট্যকেই সব সময় ঊর্ধ্বে তুলে ধরেছে। এই ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়াতে হবে। জনগণের সম্মিলিত শক্তি সব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে এনে দেবে নতুন মুক্তি, আমরা এই আশাবাদ পোষণ করি।

বিবৃতিতে সংগঠনের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, সদস্য সচিব মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, উপদেষ্টা শফিকুর রহমান, শিক্ষাবিদ শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সাইফ আহমেদ, ডা. মাসুদ আলম. ও ডা. সুনান বিন ইসলামসহ আরও অনেকে স্বাক্ষর করেছেন।

ব্রেকিংনিউজ/নিহে

bnbd-ads