অবরোধ-ঘেরাওয়ের মুখেই হাসপাতালে নেয়া হলো আল্লামা শফীকে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ১১:৩৪

অবরোধ-ঘেরাওয়ের মুখেই হাসপাতালে নেয়া হলো আল্লামা শফীকে

হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে অবরুদ্ধ অবস্থায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মাদরাসাটির পরিচালকের পদ থেকে সদ্য অব্যাহতি নেয়া হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী। 

বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে আল্লামা শফীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। বর্তমানে সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন আছেন। 

মাদরাসা মজলিসের একাধিক শুরা সদস্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে হঠাৎ অসুস্থ বোধ করেন আল্লামা শফী। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে তার অসুস্থতাও বাড়তে থাকে। তবে শিক্ষার্থীদের অবরোধের মুখে তিনি হাসপাতালে যেতে পারছিলেন না। রাত ১২টার দিকে মাসরাদার প্রধান ফটকের সামনে প্রায় আধাঘণ্টা আল্লামা শফীকে বহনকারী অ্যাম্বুলেন্সটি ঘিরে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। 

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে এক ঘোষণায় হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালকের পদ থেকে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান আল্লামা শফী।

ওই ঘোষণায় বলা হয়, মুহতামিম বা মহাপরিচালকের পদ থেকে সরে যাওয়ায় আল্লামা শফীকে সদরে মুহতামিম বা উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এছাড়া বৈঠকে মাওলানা নুরুল ইসলামকে অব্যাহতি দেয়ার পাশাপাশি মাওলানা আনাস মাদানীর বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বহাল রাখা হয়েছে। 

গেল বুধবার হঠাৎ করেই বিভিন্ন দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করে হাটহাজারী মাদরাসার সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এসময় মাদরাসার পরিচালক ও হেফাজতের আমির আল্লামা শফীসহ বিভিন্ন শিক্ষকের কক্ষে ভাঙচুর চালায় আন্দোলনকারীরা। 

এ পরিস্থিতিতে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে হাটহাজারী মাদরাসা বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়। কিন্তু সরকারের ওই আদেশ না মানার ঘোষণা দিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার পাল্টা ঘোষণা আসে আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে। 

গেল বুধবার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে হাটহাজারী মাদরাসা থেকে প্রতিষ্ঠানটির সহকারী শিক্ষা সচিব মাওলানা আনাস মাদানীকে অব্যাহতি দেয়া হয়। 

১০০ ছুঁই ছুঁই বয়সী আল্লামা শফী দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। 

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads