বাংলাদেশেরও অগ্রিম টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং প্রয়োজন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ১১:২০ আপডেট: ১২:৩৭

বাংলাদেশেরও অগ্রিম টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং প্রয়োজন

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে বিশ্বজুড়ে তোলপাড় চলছে। বেশ কিছু দেশ ভ্যাকসিন কেনার জন্য আগাম অর্থও জমা দিয়েছে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশেরও অগ্রিম অর্থ জমা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন কোভিড-১৯ জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। 

কমিটির চেয়ারপারসন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লাহর সভাপতিত্বে কোভিড-১৯ জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ১৯তম অনলাইন সভায় এ কথা বলা হয়েছে।

সভায় পরামর্শক কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিশ্বের সব দেশ ভ্যাকসিন সংগ্রহ নিয়ে প্রতিযোগিতায় নেমেছে। কয়েকটি দেশ অগ্রম অর্থ জমা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করছে। গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন-গ্যাভির ভ্যাকসিন পেতে বেশ দেরি হওয়ারও আশঙ্কা রয়েছে। এমতাবস্থায় বাংলাদেশেও আগাম টাকা জমা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করা প্রয়োজন। 

সেখানে আরও বলা হয়, কোনও কোনও টিকার জন্য প্রয়োজনীয় তাপমাত্রার কোল্ড চেইন ব্যবস্থা আমাদের নেই। ভ্যাকসিন নির্বাচনে সে বিষয়টির দিকে লক্ষ্য রাখা যেতে পারে অথবা উল্লিখিত তাপমাত্রার কোল্ড চেইন ব্যবস্থা করা যেতে পারে। 

এছাড়া কোনও একটি ভ্যাকসিনের জন্য কাজ না করে একাধিক উৎসের সঙ্গে যোগাযোগ ও ভ্যাকসিন সংগ্রহের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। বিশেষ করে যেসব দেশের ভ্যাকসিন তৈরিতে সম্পৃক্ততা রয়েছে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

বর্তমানে পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হচ্ছে, যার পরিমাণ তুলনামূলকভাবে কম। কোভিড-১৯ পরীক্ষার পরিমাণ বাড়াতে পারলে আরও বেশি কোভিড-১৯ সংক্রমণ শনাক্ত করার সম্ভাবনা রয়েছে। এ উদ্দেশ্যে জাতীয় পরামর্শক কমিটি অ্যান্টিজেন ও অ্যান্টিবডি টেস্টের জন্য একাধিকবার পরামর্শ দিয়েছে বলেও সভায় বলা হয়। 

একইসঙ্গে সভায় কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরে নেয়া পদক্ষেপগুলো নিয়েও আলোচনা করা হয়। এছাড়া দ্রুত ভ্যাকসিন সংগ্রহ ও বিতরণের প্রস্তুতির ব্যাপারে সরকারের প্রচেষ্টার জন্য সাধুবাদ জানায় পরামর্শক কমিটি। 

পাশাপাশি দ্রুত ভ্যাকসিন সংগ্রহ ও বিতরণ নিশ্চিত করার জন্য কয়েকটি দিকে লক্ষ্য রাখার পরামর্শও দেয়া হয় সভায়। 

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads