সাংবাদিকতার পথিকৃৎ মানিক মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী আজ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১ জুন ২০২০, সোমবার
প্রকাশিত: ০৫:২৬ আপডেট: ০৫:৩৬

সাংবাদিকতার পথিকৃৎ মানিক মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী আজ

গণমুখী সাংবাদিকতার পথিকৃৎ তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার ৫১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৬৯ সালের এই দিনে মাত্র ৫৮ বছর বয়সে পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডিতে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ক্ষণজন্মা এই সাংবাদিক।

তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার জন্ম ১৯১১ সালে পিরোজপুর জেলার ভাণ্ডারিয়া গ্রামে। তার বাবার নাম মুসলেম উদ্দিন মিয়া। তিনি পিরোজপুর জেলা সিভিল কোর্টে চাকরি শুরু করেন। এ সময় তিনি তত্কালীন মুসলিম লীগের নেতা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী সান্নিধ্যলাভের সুযোগ পান। সোহরাওয়ার্দী সাহেবের আহ্বানে চাকরি ছেড়ে দিয়ে তিনি যোগ দেন তদানীন্তন বাংলা সরকারের জনসংযোগ বিভাগে বরিশাল জেলার সংযোগ অফিসার হিসেবে। কিছুদিন পর সেই চাকরি ছেড়ে তিনি কলকাতার প্রাদেশিক মুসলিম লীগের অফিস সেক্রেটারি হিসেবে যোগ দেন। এ সময় ১৯৪৬ সালে আবুল মনসুর আহমেদের সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় ‘দৈনিক ইত্তেহাদ’। এ পত্রিকার সঙ্গে মানিক মিয়া মাত্র দেড় বছর যুক্ত ছিলেন। ’৪৭-এর দেশবিভাগের পর কিছুকাল কলকাতায় অবস্থান করে মানিক মিয়া তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানে চলে আসেন। ১৯৫১ সাল থেকে তিনি সাপ্তাহিক ইত্তেফাকের পূর্ণ দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ১৯৫৩ সালে তার সম্পাদনায় ‘সাপ্তাহিক ইত্তেফাক’ ‘দৈনিক ইত্তেফাক’-এ রূপান্তরিত হয়। 

মানিক মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মরহুমের আজিমপুরস্থ মাজার প্রাঙ্গণে সকাল ৭টা থেকে কোরআনখানি, সকাল ১০টায় দোয়া মাহফিল, মরহুমের কনিষ্ঠ পুত্র আনোয়ার হেসেন মঞ্জুর পক্ষ থেকে এতিমখানায় কোরআনখানি ও দোয়া মাহফিল এবং জ্যেষ্ঠ কন্যা মরহুমা আখতারুন্নাহার বেবীর পরিবারের পক্ষ থেকে এতিমখানায় কোরআনখানির আয়োজন করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হেসেন মঞ্জু এবং সাধারণ সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম গণমুখী সাংবাদিকতার পথিকৃৎ তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার ৫১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘মানিক মিয়া ছিলেন এদেশের মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের পুরোধা ব্যক্তিত্ব। মৃত্যুবার্ষিকীতে আমরা তাকে গভীর শ্রদ্ধা ও বিনম্র ভালোবাসার সঙ্গে স্মরণ করছি।’

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

bnbd-ads