লকডাউনেও অটুট থাকুক বন্ধুত্ব

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
৩০ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ০৩:০২

লকডাউনেও অটুট থাকুক বন্ধুত্ব

বন্ধু তোর বারাত নিয়া আমি যাব...। এই গান শোনেননি এমন খুঁজে পাওয়া মুশকিল। বন্ধুত্বের দিনে এমন গান আলাদা এক আবেশ তৈরি করে দেয়। এ গানে বন্ধুর কাছে বন্ধুত্বের অঙ্গীকার করে বন্ধু। এই বছর করোনার প্রকোপে সকলেই বন্দি। অনেকেই পরিবার স্বজন থেকে দূরে। কেউ দেশের মধ্যে, কেউ আবার দেশের বাইরে। কবে নিজের বাড়ি ফিরতে পারবেন, কবেই এই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তা জানেন না কেউই। তাই যোগাযোগের ভরসা এখন ফোন, ভিডিয়ো কল। কিন্তু তাতে ক্ষতি নেই। বন্ধুত্ব এমন একটি বন্ধন, এতে থাকে স্বার্থহীন ভালোবাসা।

আজ ৩০ জুলাই। বিশ্ব বন্ধুত্ব দিবস। পৃথিবীর অন্যতম নিষ্পাপ সম্পর্কের একটি হল 'বন্ধুত্ব'। একে অন্যকে আপন করে নেওয়ার নামই বন্ধুত্ব। তবে একে অন্যের সুখে-খুশিতে লাফিয়ে ওঠার; একে অন্যের দুঃখে পাশে দাঁড়ানোর। মন খুলে কথা বলা, হেসে গড়াগড়ি খাওয়া আর চূড়ান্ত পাগলামি করার একমাত্র আধার এই 'বন্ধুত্ব'। 

আগস্টের প্রথম রবিবার বন্ধুত্ব উদযাপনের দিন। তবে বন্ধুত্ব দিবস বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন তারিখে পালন করা হয়। প্রথম ১৯৫৮ সালের ২০ জুলাইকে বিশ্ব বন্ধুত্ব দিবস প্রস্তাব করেন ড. আর্টেমিও ব্র্যাচো। পরে ২০১১ সালের ২৭ এপ্রিল সাধারণ অধিবেশনে ৩০ জুলাইকে অফিসিয়াল ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডশিপ ডে ঘোষিত হয়।

প্রসঙ্গত, জীবনের নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদান আর তাদের প্রতি সম্মান জানানোর লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে ১৯৩৫ সালে আগস্টের প্রথম রবিবারকে বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়।

ব্রেকিংনিউজ/এমজি

bnbd-ads