দু’দফার লকডাউন প্রাণ বাঁচিয়েছে ৭৮ হাজার মানুষের!

ভারত ডেস্ক
২৩ মে ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ০৩:৪৪

দু’দফার লকডাউন প্রাণ বাঁচিয়েছে ৭৮ হাজার মানুষের!

লকডাউনের কার্যকারিতা নিয়ে বহু অভিযোগ উঠেছে। উপর্যুপরি, এর ফলে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষকে যে পরিমাণ কষ্টে পড়তে হয়েছে তা অবর্ণনীয়। কিন্তু সকল দেশের সরকার বলছে, করোনার ছড়িয়ে পড়া রুখতে লকডাউন জারি ছাড়া উপায় ছিল না। এই লকডাউনের ফলেই লক্ষ লক্ষ মানুষ বেঁচেছেন করোনায় সংক্রমিত হওয়া থেকে। এর ফলে বেঁচে গিয়েছে হাজার হাজার প্রাণ।

শুক্রবার ভারতের এক পরিসংখ্যান দাবি করে, প্রথম দুদফায় লকডাউন না হলে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ লক্ষ পর্যন্ত হতে পারত। মৃতের সংখ্যা হতে পারত ৭৮ হাজার পর্যন্ত। ২৫ মার্চ থেকে জারি হওয়া লকডাউনের কার্যকারিতা নিয়ে বহু সংস্থা সমীক্ষা করেছে। 

সেইসব সমীক্ষার তথ্য তুলে ধরে এই জরিপের বিশেষজ্ঞ বলছেন,”এই তথ্য শুধু প্রথম দুই দফার লকডাউনের কার্যকারিতা নিয়ে করা পর্যবেক্ষণের ফল। যদিও বহু সংস্থা সমীক্ষা করেছে তবে ফলাফল প্রায় একইরকম। সবাই এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে। সেটা হল, লকডাউনের জেরে উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে করোনার সংক্রমণ।” 

তিনি আরও বলছেন,”এই তথ্য বলছে, লকডাউন না হলে পরিস্থিতি অনেক খারাপ হত। যে তথ্য এসেছে এতেই প্রমাণ হয়, দেশ সঠিক পথেই এগোচ্ছে।”

এই জরিপে যে তথ্য প্রকাশ করেছে সেই তথ্য অনুযায়ী প্রথম দু’দফার লকডাউন না হলে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ লক্ষ থেকে ২৯ লক্ষ পর্যন্ত হতে পারত। এবং মৃতের সংখ্যা হতে পারত ৩৭ হাজার থেকে ৭৮ হাজার পর্যন্ত।

ব্রেকিংনিউজ/অমৃ

bnbd-ads