সাতক্ষীরায় ধ্বংসলীলা চালিয়ে রাজশাহী গিয়ে শক্তি হারালো আম্পান

পরিবেশ ডেস্ক
২১ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার
প্রকাশিত: ১০:০৫ আপডেট: ১১:০৫

সাতক্ষীরায় ধ্বংসলীলা চালিয়ে রাজশাহী গিয়ে শক্তি হারালো আম্পান

বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অতি প্রবল শক্তিতে বুধবার শেষ বিকেলে উপকূলে আঘাত হানা সুপার সাইক্লোন আম্পান দেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় জেলা সাতক্ষীরায় তাণ্ডব চালিয়ে এখন রাজশাহীতে অবস্থান করছে। বর্তমানে ক্ষমতা কিছুটা কমে সুপার সাইক্লোনটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। 

আবহাওয়া অধিদফতরের বরাত দিয়ে বিবিসি বাংলার খবরে বলা হয়েছে, যেকোনও সময় মহাবিপদ সংকেত নামিয়ে স্থানীয় সতর্ক সংকেত জারি করা হবে। 

গতকাল বুধবার সকাল থেকেই দেশের সকল সমুদ্রবন্দর ও উপকূলীয় জেলা এবং জেলাগুলোর অদূরবর্তী চরাঞ্চলে মহাবিপদ সংকেত জারি করা হয়। বিকেল দিকে পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়ে আম্পান বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় জেলা সাতক্ষীরা দিয়ে প্রবেশ করে এবং প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের রুদ্ররূপ দেখায়।

মূলত ঘূর্ণিঝড় আম্পান বাংলাদেশে প্রবেশ করে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার সর্বদক্ষিণের লোকালয় মুন্সীগঞ্জ-সংলগ্ন সুন্দরবন দিয়ে। এখান থেকে কিছুটা দক্ষিণে এগোলেই সুন্দরবনের ভারতীয় অংশ শুরু।

অন্তত ২৩টি বেরিবাঁধ ভেঙে সাতক্ষীরায় আম্পান ব্যাাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে বলে বৃহস্পতিবার সকালে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল। 

এদিকে উপকূলীয় জেলাগুলো থেকে অগ্রসর হয়ে আম্পান ধীরে ধীরে রাজশাহীতে তাণ্ডব চালায়। রাতভর রাজশাহী ও এর আশপাশের জেলাগুলোতে আম্পানের আঘাতের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। 

এদিকে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে দেশের ৫ জেলায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ভোলায় রামদাসপুর চ্যানেল একটি ট্রলার ডুবে একজন ও চরফ্যাশনের শশীভূষণ এলাকায় গাছচাপা পড়ে ছিদ্দিক ফকির নামের এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। পটুয়াখালীতে শিশুসহ দুজন, সাতক্ষীরা ও পিরোজপুরেও নারীসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া যশোরে গাছ চাপা পড়ে মা ও মেয়ের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়।

এছাড়া আম্পানের আঘাতে প্রতিবেশী দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ১০-১২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। 

ব্রেকিংনিউজ/এমআর

bnbd-ads