‘জানি মানুষ গালি দিবে, তারপরও প্রচলিত প্রথা ভাঙতে চাই’

বিনোদন ডেস্ক
২৩ মে ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ০২:২০

‘জানি মানুষ গালি দিবে, তারপরও প্রচলিত প্রথা ভাঙতে চাই’

ভাইরাসের বিস্তার রোধে দেশ লকডাউন, কর্মহীন মানুষ, বিপর্যস্ত অর্থনীতি, অন্ধকার ভবিষ্যৎ, স্বাস্থ্যখাতের চরম বিশৃঙ্খল অবস্থা, মৃত্যুভয়, প্রিয়জনকে হারানোর আতঙ্ক ইত্যাদি থেকে সরে খানিকটা স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতে এ সময় মানুষ বিনোদন জগতে আশ্রয় খোঁজে৷ 

তাই তো নেটফ্লিক্স ও অ্যামাজন প্রাইমের মতো প্রতিষ্ঠানে ব্যবসা ফুলে ফেঁপে উঠেছে৷

কিন্তু বাংলাদেশে সেই বিনোদন নিয়েও আছে নানা মত৷ একজনের কাছে যা বিনোদন, অন্যজনের কাছে তা হয়ত চরম বিরক্তিকর বিষয়৷ একজন যেটাকে নিছক বিনোদন বলছেন, অন্যজন সেটাকে রীতিমতো হুমকি মনে করছেন৷

সেক্ষেত্রে বিনোদন আসলে কী? বিনোদন কি কৌতুক, দুঃখ না শিক্ষা; নাকি এর চাইতেও বিস্তৃত অর্থের কিছু৷ বিনোদন মানে কি সৃজনশীলতা, নাকি শুধুই ‍অর্থ?

এসব নিয়ে কথা বলতে ডয়চে ভেলের ইউটিউব টকশো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়’-এ হাজির হন চলচ্চিত্র পরিচালক ও বিজ্ঞাপন নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী এবং ইউটিউব তারকা সালমান মুক্তাদির৷ 

অমিতাভ রেজা বলেন, ‘‘আমরা যা করি তার সবই আসলে বিনোদনের জন্য করি৷ তবে আমি কোনো কাজ করার সময় বিনোদন কতটা দিতে পারবো সেটা ভাবি না৷ আমার যে গল্পটা বলতে ভালো লাগে আমি সেটাই বলতে চাই৷ আমি মানুষের কাছে গল্পের ইমোশনটা পৌঁছাতে চাই৷ আর যে-কোনো ধরনের ইমোশন ইভোক করাই বিনোদন৷

বিনোদন হাসি, কান্না বা বিরহ হতে পারে৷ সেটাতে দর্শক বিনোদিত হবে কিনা বা পছন্দ করবে কিনা আমি সেটা ভাবি না৷ কারণ, পপুলার মানেই ভালো কিছু না৷ পপুলার হিসেবে বিনোদনকে বিচার করা ঠিক না৷ বরং সৃজনশীলতার উপর বিচার করা উচিত৷ যে কাজটি করছেন, যে পরিচালক কোনো কাজ করছেন, তার দায়িত্ব হলো কাজটা সৃজনশীলভাবে করা৷’’

সৃজনশীলতার প্রশ্নে বাংলাদেশের অনেকে সালমান মুক্তাদিরকে সৃজনশীল ব্যক্তি মনে করেন না৷ অথচ তিনি বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয়৷ তার এক শ্রেণির দর্শক রয়েছেন, যারা ইউটিউবে তার ভিডিওগুলো দেখেন৷ ওইসব ভিডিওর জন্য সালমান দারুণভাবে সমালোচিতও৷

এ প্রসঙ্গে সালমান মুক্তাদির বলেন, ‘‘আমি অবশ্যই নিজেকে একজন সৃজনশীল মানুষ মনে করি৷ নিজেকে সৃজনশীল মনে না করলে আমি আমার কাজ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে করতে পারবো না৷

‘‘আমি গণমানুষের জন্য কনটেন্ট বানাই না৷ আমার এক শ্রেণির দর্শক আছে, তাদের জন্যই আমি ভিডিও বানাই৷ জানি মানুষ গালি দিবে, তারপরও সমাজের প্রচলিত প্রথা আমি ভাঙতে চাই৷ এটাই আমার প্যাশন৷’’

শিক্ষার অভাবে বাংলাদেশের মানুষ সৃজনশীল হয়ে গড়ে উঠছেন না বলে মনে করেন অভিতাভ রেজা৷

বলেন, ‘‘আমাদের মোট বাজেটের খুব সামান্য অংশই শিক্ষাখাতে ব্যয় হয়৷ যেদেশে শিক্ষাখাতের এ অবস্থা সে দেশে সৃজনশীল জাতি গড়ে তোলা কঠিন৷’’

ব্রেকিংনিউজ/অমৃ

bnbd-ads