মাদারীপুরে ব্যবসায়ী নুর আলমকে কুপিয়ে হত্যা

মাদারীপুর প্রতিনিধি
২৯ মে ২০২০, শুক্রবার
প্রকাশিত: ০৩:৩৮

মাদারীপুরে ব্যবসায়ী নুর আলমকে কুপিয়ে হত্যা

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মাদারীপুরের ব্যবসায়ী হাওলাদার মোটরস এর মালিক নুরআলম হাওলাদার(৩৫) বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার শহরে পাবলিক লাইব্রেরী সংলগ্ন হাওলাদার মোটরসেরে দোকানে কুপিয়ে হত্যার চেস্টা করেছে প্রতিপক্ষরা। 

এরপরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে তার মৃত্যু হয়। এরপর পরই এলাকায় চোকিদার ও চোকিদার বংসের সাথে যার জরিত ১৮০টি বাড়িতে ভাঙচুর ও আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ। নিহত নুর আলম হাওলাদার মাদারীপুর সদর উপজেলার ঘটমাঝি ইউনিয়নের হাজিরহাওলা এলাকার আলালউদ্দিন হাওলাদারের ছেলে।

নুর আলম হাওলাদারের পরিবার জানায়, এলাকায় পুর্বশুত্রুতার জেরে আার আগেও তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্ত দোকানে বৃহস্পতিবার একা পেয়ে দোকানে ঢুকে মওলা চোকিদার ও তার ছেলে রাসেল চোকিদারসহ কয়েকজন সন্ত্রাসী এলোপাথাড়ি ভাবে কুপিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মারাত্বক ভাবে জখম করেছে।এরপর তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে তার অবস্থায় গুরুত্বর হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। সেখানে রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এই ঘটনার পর থেকেই এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তবে মৃত্যু সংবাদ এলাকায় জানাজানি হলে হাওলাদাররা এলাকায়ার চোকিদারদের প্রায় দুই শতাধিক বাড়ি ঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। প্রায় ৮ ঘন্টা ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট আপ্রাণ চেস্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারে। অন্যদিকে সদর সার্কেল মাদারীপুর ফেইসবুক পেইজে আগুন দেয়া ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

আরও জানা যায়, গত ৩/৪ মাস আগে মাদারীপুর সদর উপজেলার হাজিরহাওলা তিন নম্বর ব্রিজ এলাকায় হাওলাদার ও চোকিদার বংশের মাঝে সংঘর্ষ হয়। সে সময় কয়েকজন কে কুপিয়ে আহত করা হয়। যা নিয়ে এর আগেও মামলাও হয়েছিল। তারই জের ধরে বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।

হাজির হাওলা চেকিদার বংসের সাথে বাড়ির পাশে আবিদ হাওলাদার মোবাইলে ফোনে জানান, যারা অন্যায় করছে তাদের আইননানুক ব্যবস্থায় নেয়া হক কিন্ত আমরা নির্দোষী মানুষ তাদের বাড়ি কেন তারা লুটপাট ভাঙচুর ও আগুন দিচ্ছে। এখন পযন্ত প্রায় ১৮০টি বাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। আমরা জানতে পেরেছি তারা নাকি বাকি যে ঘরগুলো আছে সেগুলোও পুড়িয়ে দেবে। আমাদের অনেক মানুষ আহত রয়েছে তারা দুরে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। আমরা সরকারের কাছে এর বিচার চাই।

হাজিরহাওলা এলাকার ইউপি সদস্য নজরুল হাওলাদার জানান, এই এলাকায় অনেক আগের থেকেই হাওলাদার ও চোকিদাদের মাঝে পুর্বশুত্রুতার জেরেই বিভিন্ন সময় সংঘর্ষ হয়ে আসছে গত কয়েক মাস আগে রমজান নামে একজনকে কুপিয়েছিল তার জেরেই মাঝে মাঝে এই ঘটনা ঘটে এবং ঘটেছে। এরপর রাতে নুর আলম হাওলাদার আহত অবস্থায় হাসপতালে মারা গেলে আবারও এলাকায় ঘুণিঝড়ে মত সব ভেঙ্গে চুড়ে আগুন দিয়ে দিয়েছে।

মাদারীপুর ফায়ার সার্ভিস স্টোশন অফিসার মো. আমজেদ হোসেন জানান, গতকাল রাতে ৮/১০টি বাড়িতে আগুন দিয়েছিল পড়ে সেগুলো নিয়ন্ত্রণে আনতে আনতেই এলাকার প্রায় অর্ধশতাধিক বাড়ির বেশি ঘরে আগুন দিয়েছে। আমরা যতুটুকু জানাতে পেরেছি পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয়া হয়েছে। আমার গত রাত থেকে তিনটি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও ততক্ষণে আগুন পুড়ে গেছে ছোট-বড় অর্ধ-শতাধিক ঘর।

মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. বদরুল আলম মোল্লা (সদর সার্কেল) জানান, পুর্বশুত্রুতার জেরে আজ নুরআলমকে একা পেয়ে তাকে কুপিয়েছে এরপর আমরা এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করেছি তার মধ্যেও তারা পাশের জমিতে নেমে বিকালে আবার সংঘর্ষে জড়িয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে আহত ব্যাক্তির মৃত্যু হলে এলাকায় প্রথমে ৪/৫টি বাড়ীতে আগুন দেয় এরপর আমরা সেই রাতে ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত করলেও আমরা চলে আসলে পরবর্তিতে আবার কয়েকটি ঘরে আগুন দেয়া হয় এতে এলাকার বেশকিছু ছোট-বড় ঘরবাড়ী আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। এই এলাকায় এর আগেও মামলা রয়েছে। আমরা তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

ব্রেকিংনিউজ/;এসপি

bnbd-ads