গণপরিবহনে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষিত

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার
প্রকাশিত: ০৭:৫২

গণপরিবহনে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষিত

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার-আরোপিত সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধে বন্ধ থাকার কথা ছিল গণপরিবহন। তবে দুদিন যেতে না যেতে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বুধবার থেকে ঢাকাসহ দেশের সিটি করপোরেশনগুলোতে গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দিয়েছে সরকার। কিন্তু প্রথম দি‌নেই সরকা‌রের নি‌র্দেশ অমান‌্য কর‌ছে কিছু কিছু গণপরিবহন। এছাড়াও ঢাকার বা‌হি‌রের বাস ঢাকায় ডুক‌তে দেখা গে‌ছে। নারায়গঞ্জ, ক‌মিল্লার কিছু কিছু বাস ওই রো‌ডে ঢাকায় ডুক‌তে দেখা গে‌ছে।

সরকার লকডাউনের আগে ১৮ নি‌র্দেশনা দেয়। আর তা‌তে বলা হ‌য়ে‌ছে ৬০ শতাংশ ভাড়া বা‌ড়ি‌য়ে অর্ধেক যাত্রী নি‌তে হ‌বে।‌ কিন্তু পরবর্তী‌তে ৭ দি‌নের লকডাউন দেয় সরকার। লকডাউ‌নের দু‌দিন যে‌তেই শুধু সি‌টি‌তে গণপরিবহন চলার নি‌র্দেশ দেয় কিন্তু ১৮ নি‌র্দেশনা মে‌নে চল‌তে হবে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ের শ‌নিরআখড়া কাজলা এলাকায় দেখা যায়, কিছু কিছু গণপ‌রিবহন ভাড়া বাড়া‌লেও যা‌ত্রী কমা‌নো হয় নাই। দুই সি‌টেই যা‌ত্রী নেওয়া হ‌চ্ছে।

সরজ‌মি‌নে দেখা যায়, এই রো‌ডের লোকাল বাসগুলোতে চলছে যাত্রীদের আগে ওঠার প্রতিযোগিতা। ৬০ শতাংশ বৃদ্ধির পর কাজলা থে‌কে গু‌লিস্থা‌নের ১০ টাকার ভাড়া ১৬ টাকা হওয়ার কথা থাকলেও বাসগুলো ২০ টাকার নিচে যাত্রী তুলছে না।

সেখা‌নে দাঁড়ি‌য়ে থাকা যা‌ত্রী আশিকুর রহমান ব্রেকিংনিউজ‌কে ব‌লেন, এখান থেকে গুলিস্তানের বাস ভাড়া সবসময়ই ১০ টাকা করে। ৬০ পা‌র্সেন্ট বাড়া‌লে ১৬ টাকা হওয়ার কথা কিন্তু ২০ টাকার কমে বাসে উঠতে দিচ্ছে না হেলপাররা। এছাড়াও ডাবল সি‌টেই যা‌ত্রী নেওয়া হ‌চ্ছে। সরকারের উদ্ভট সিদ্ধান্তে সাধারণ মানুষের ওপর এমন জুলুম করার সাহস পায় বাস চালকরা।

লোকাল বাস শ্রাব‌ণে দেখা যায় প্রতি‌টি সি‌টেই যাত্রী নেওয়া হ‌য়ে‌ছে। সেই বা‌সের হেলপার সাইদুর রহমা‌ন ব‌লেন, ডাবল সি‌টে যাত্রী নেওয়া এটাই আমা‌দের নিয়ম তাই নি‌চ্ছি।

সরকার তো এক সি‌টে যাত্রী নি‌তে ব‌লে‌ছে আপনারা সরকা‌রের নিয়ম মান‌ছেন না কেন জান‌তে চাই‌লে তি‌নি ব‌লেন, ওটা সি‌টিং বা‌সের জন‌্য আমা‌দের জন‌্য না।

প্রসঙ্গত, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বিকেলে নিজের সরকারি বাসভবন থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকাসহ দেশের সব সিটি করপোরেশন এলাকায় সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গণপরিবহন সেবা চালু থাকবে। এটি বুধবার সকাল থেকে কার্যকর হবে। তবে শহরের বাইরের কোনো পরিবহন শহরে প্রবেশ করতে পারবে না এবং বের হতেও পারবে না।’

পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত দূরপাল্লায় গণপরিবহন চলাচল যথারীতি বন্ধ থাকবে বলেও জানান মন্ত্রী।

ব্রেকিংনিউজ/এএইচএস/এমএইচ

bnbd-ads