বেতন স্কেলের পার্থক্য সমহারে নির্ধারণ ও গ্রেড সংখ্যা কমানোর দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার
প্রকাশিত: ০১:২৭

বেতন স্কেলের পার্থক্য সমহারে নির্ধারণ ও গ্রেড সংখ্যা কমানোর দাবি

৯ম পে-স্কেল ঘোষণার মাধ্যমে বিদ্যমান তৈরি হওয়া বেতন বৈষম্য নিরসন করে গ্রেড অনুযায়ী বেতন স্কেলের পার্থক্য সমহারে নির্ধারণ ও গ্রেড সংখ্যা কমানোসহ ৮ দফা দাবি জানিয়েছে ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকুরিজীবীদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরাম।

 শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সংগঠনটি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব দাবি জানানো হয়।

তাদের অন্যান্য দাবি গুলো হচ্ছে- এক ও অভিন্ন নিয়োগ বিধি বাস্তবায়ন করা; সকল পদে পদোন্নতি বা ০৫ বছর পর পর উচ্চতর গ্রেড প্রদান করা; টাইম স্কেল, সিলেকশন মেড, পূর্ণবহাল সহ বেতন জ্যেষ্ঠতা বজায় রাখা; সচিবালয়ের ন্যায় পদবী ও গ্রেড পরিবর্তন করা; সকল ভাতা বাজার চাহিদা অনুযায়ী পুনঃনির্ধারণ করা; নিম্ন বেতন ভোগীদের জন্য রেশন ও বিদ্যমান পেনশনের হার ৯০ শতাংশের পরিবর্তে ১০০ শতাংশ পুনঃনির্ধারণসহ পেনশন গ্রাচুইটির হার ১ টাকা সমান ৫০০ টাকা করা এবং কাজের ধরণ অনুযায়ী পদের নাম ও গ্রেড একিভূত করা।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. মাহমুদুল হাসান বলেন, ১১-২০ গ্রেডের লাখ লাখ কর্মচারীকে বাদ দিয়ে দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করা সম্ভব না। তাই আমাদের এই দাবি আদায়ে বারবার কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে কোন দৃশ্যমান পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি।

আগামী ২৯ অক্টোবরের মধ্যে দাবি আদায় না হলে ৩০ অক্টোবর ৬৪ জেলার প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন এবং ১ নভেম্বর সকল জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।


ব্রেকিংনিউজ/এএইচএস/এমজি

bnbd-ads